কুমিল্লা শহরতলীর দৌলতপুরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড: পুড়ে গেছে ২৫ টি ঘর

মোঃ জহিরুল হক বাবু।।
কুমিল্লা শহরতলীর দৌলতপুরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পুড়ে গেছে ২৫ টি ঘর। বুধবার সন্ধ্যায় দৌলতপুর রেলগেইট সংলগ্ন হারু ভূঁইয়ার বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। কুমিল্লা ফায়ার সার্ভিস এর ৪ চৌকস ইউনিট এসে স্থানীয় জনগনের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। গ্যাস সিলিন্ডার থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানা গেছে।

কুমিল্লা ফায়ার সার্ভিস এর কর্মকর্তা আলী আজম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তাৎক্ষনিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানা যায়নি। তবে ক্ষতিগ্রস্থদের দাবি ক্ষতির পরিমান অর্ধ-কোটি টাকা হবে।

স্থানীয় দৌলতপুর গ্রামের অধিবাসী কামরুল হাছান, গোবিন্দপুর এলাকার অধিবাসী এমএ হাসান খান সহ স্থানীয়রা জানান, বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে আদর্শ সদর উপজেলার দক্ষিন দূর্গাপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর হারুন ভূইয়ার বাড়ির আমজাদ হোসেনের ভাড়াটিয়া ঘরের গ্যাস সিলিন্ডার থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত ঘটে। নিমিষে এ আগুন চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। মোজাম্মেল হক এর ৮ টি ভাড়াটিয়া পরিবারের ঘর ও ফারুক ভূইয়ার বসত ঘর সহ ভাঢ়াটিয়াদের ঘর পুড়ে যায়। খবর পেয়ে কুমিল্লা ফায়ার সার্ভিস ও ইপিজেড এর ৪ টি ইউনিট এসে প্রায় দেড় ঘন্টার মধ্যে স্থানীয়দের সহযোগীতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রেজাউল করিম রাজন জানান, দৌলতপুর পূর্ব পাড়ায় আকস্মিক আগুনে পুড়ে গেছে ২০-২৫ টি ঘর। এতে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এদের অধিকাংশই ভাড়াটিয়া । খেটে খাওয়া মানুষ। আগুনে ঘরের আসবাবপত্রসহ সকল মালামাল পুড়ে যাওয়ায় তারা নি:স্ব হয়ে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য সরকারি সাহায্য অতি জরুরী হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় দৌলতপুর এলাকার অধিবাসী আদর্শ সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তারিকুর রহমান জুয়েল জানান, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে তিনি দ্রুত ছুটে আসেন। সিলিন্ডার ফায়ার সার্ভিস ও এলাকাবাসীর সাহসিকতার কারণে দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। গ্যাস সিলিন্ডার থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। এ অগ্নিকান্ডে ২০-১৫ ঘর পুড়ে গেছে। আমরা ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে সর্বাত্মক সহযোগীতা নিয়ে দাঁড়াব।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page