কুমিল্লায় রেললাইনের পাশে অটোরিকশা চালকের মরদেহ, স্বজনদের দাবি হত্যা

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলায় রেললাইনের পাশ থেকে এক অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্বজনদের দাবি, তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের নাঙ্গলকোট-হাসানপুর রেল স্টেশনের মাঝিপাড়া থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয় বলে লাকসাম রেলওয়ে থানার এসআই আমিরুল ইসলাম জানান।

নিহত অটোরিকশা চালক মো. নুরুন্নবী (৩৮) নাঙ্গলকোট পৌর এলাকার খান্নাপাড়া গ্রামের প্রয়াত তিতা মিয়ার ছেলে।

নিহতের স্ত্রী তানিয়া আক্তার বলেন, “বৃহস্পতিবার রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে পড়েন নুরুন্নবী। হঠাৎ তার মোবাইল ফোনে একটি কল আসে। কলটি রিসিভ করে তিনি বাইরে যায়। ঘর থেকে বের হওয়ার সময় তিনি বলেন, ‘চলে আসতেছি তুমি ঘুমিয়ে পড়’।

“পরে আমি ঘুমিয়ে পড়ি। রাতে আর তিনি ঘরে ফেরেননি। সকালে খবর পাই রেললাইনের পাশে একটি মরদেহ পড়ে আছে। দ্রুত সেখানে গিয়ে দেখি নুরুন্নবী মরদেহ। তাকে হত্যা করে মরদেহ ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা।”

নিহতের বড় ভাই আনিসুল হক বলেন, “মরদেহ দেখে ট্রেনে কাটা মনে হচ্ছে না। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।”

এসআই আমিরুল ইসলাম বলেন, মরদেহের মাথা ও পায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলে জানান তিনি।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page