কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে নিজ ঘরে পড়েছিল বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

নেকবর হোসেন।।
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলায় জবা খাতুন নামে (৭০) এক বৃদ্ধাকে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সকালে উপজেলার ঢালুয়া ইউনিয়নের চাঁন্দলা গ্রামে উত্তরপাড়ায় বসতঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জবা খাতুন ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের স্ত্রী।

জবা খাতুনের মেয়ের জামাই শাহ আলম জানান, দুই দিন আগে আমাদের বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে আসেন। আজ সকাল সাড়ে ৭টায় আমার শ্যালক মোবাইল ফোনে জানান, তাকে জবাই করে হত্যা করেছে ডাকাতরা। খরর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছি। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার চাই।

নিহতের দেবর অলি উল্লাহ বলেন, সকালে জবা খাতুনের পুত্রবধূ ঘরে নাস্তা দিতে গিয়ে রক্তাক্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে আমরা ঘটনাস্থলে আসি। এ সময় ঘরের আসবাবপত্র এলোমেলো অবস্থায় পড়েছিল। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। জবা খাতুন অসুস্থ ছিলেন।

নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল খায়ের বলেন, নিজ ঘরে বৃদ্ধা একাই ছিলেন। গলা ও মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘটনার পর দরজা-জানালা খোলা ছিল। দুর্বৃত্তরা কিছু ভেঙে ঘরে প্রবেশ করেছে এমন আলামত পাওয়া যায়নি। লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাটি রহস্যজনক। ধারণা করা হচ্ছে, রাতে কোনও এক সময় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ডাকাতি নাকি অন্যকিছু তা তদন্ত ছাড়া বলা যাবে না।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page