কুমিল্লার লাকসামে পানির ট্রাকের চাপায় মাদরাসার ছাত্র নিহত

লাকসাম প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার লাকসাম পৌরসভার রাস্তা নির্মাণ কাজে নিয়োজিত পানির ট্রাক চাপায় এক মাদরাসার ছাত্র নিহত হয়েছে।

রোববার (১২ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে চারটায় পৌর শহরের জবাইখানা রোডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইসমাইল হোসেন পরান (১২) ঐ এলাকার উম্মূল ক্বোরা মাদরাসার সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র। সে পৌরসভার ফতেপুর গ্রামের প্রবাসী মিজানুর রহমানের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় লোকজন জানান, আসরের নামাজের পর মাদ্রাসা ছুটি হলে পরানসহ তিনজন ছাত্র দোকানে যায়। তারা পাউরুটি-কলা কিনে ফেরার পথে সেলিম মাহমুদের দোকানের পাশে পৌঁছুলে পৌরসভার রাস্তা নির্মাণকারী ম্যাক্স ঠিকাদারের পানিবাহী একটি ট্রাক্টর বেপরোয়া গতিতে যাওয়ার সময় পরানকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এ সময় সাথে অপর শিক্ষার্থী সাকিব আল হাসানসহ দুজন আহত হয়। আহত সাকিবকে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। অপরজনকে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

ঘটনার পর ম্যাক্স ঠিকাদারের পানিবাহি ট্রাক্টরের চালক গাড়ি রেখে পালিয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গাড়ির বডি থেকে চাকা বাইরে থাকায় বেপরোয়া গতিতে আসা শিশু শিক্ষার্থীরা কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই চাকায় পিষ্ট হয়ে এক শিক্ষার্থী মারা যায়।

এ বিষয়ে সড়ক নির্মাণ কাজে নিয়োজিত ম্যাক্স ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সিএম আমিনুল ইসলাম বলেন, সন্ধ্যায় দুর্ঘটনায় শিশুর মৃত্যু সংবাদ পেলাম। আমি ঘটনাস্থলে যাচ্ছি।

মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা সামছু উদ্দিন জানান, আসরের নামাজের পর মাদ্রাসা ছুটি হলে ছেলেরা খেলাধুলা করতে যায়। সাকিবসহ তিনজন ছেলে মাদ্রাসা থেকে প্রায় ২শ গজ দূরে একটি দোকানে কলা-পাউরুটি কিনতে যায়। ফেরার পথে পানিবাহি ট্রাক্টরের চাপায় ঘটনাস্থলেই পরানের মৃত্যু হয়। আহত সাকিবকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

লাকসাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ বলেন, এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। নিহত মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

You cannot copy content of this page