কুমিল্লায় আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ: অগ্নিসংযোগ ও গুলিবর্ষণে আহত ৫

নিউজ ডেস্ক।।
২১ আগস্টের মিছিলকে কেন্দ্র করে কুমিল্লায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, গুলিবর্ষণ ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ সময় পাঁচজন আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।

আজ রোববার বেলা আড়াইটার দিকে কুমিল্লা শহরতলীর দুর্গাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের ধর্মপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের একটি অংশের অভিযোগ, ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার ১৮ বছর বর্ষপূর্তিতে কুমিল্লা টাউন হল মাঠে এক গণজমায়েত ও বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করেছে মহানগর আওয়ামী লীগ। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি। বেলা আড়াইটার দিকে গণজমায়েতে যোগ দিতে ধর্মপুর ডিগ্রি কলেজ রোডের উত্তর প্রান্তে জড়ো হচ্ছিল ধর্মপুর এলাকার স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মী। ধর্মপুর এলাকার বাসিন্দা দুর্গাপুর ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার ওরফে বাদশা মিয়া বাড়ি থেকে মিছিলে যোগ দিতে আসার পথে ডিগ্রি কলেজের সামনে স্থানীয় ইউপি মেম্বার আবদুল হান্নান সোহেল তাকে গতিরোধ করে মারধর করে। খবর পেয়ে ডিগ্রি কলেজ রোডের উত্তর প্রান্তে অবস্থান নেওয়া কর্মীরা ছুটে আসে। স্থানীয় যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম চপল ও ফখরুল ইসলাম রুবেল মেম্বারের নেতৃত্বে ইউপি মেম্বার আবদুল হান্নান সোহেল অনুসারীদের ধাওয়া করে। গুলি বর্ষণের ঘটনাও ঘটে। এ সময় ইউপি মেম্বার সোহেলের মোটরসাইকেলটি পুড়িয়ে দেয়। এ সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হয় বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম চপল জানান, ইউপি মেম্বার সোহেল সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক গ্রুপের লোক। ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে হাজী বাহার এমপির টাউন হলে ডাকা গণজমায়েত ও বিক্ষোভ মিছিলে আসার পথে আওয়ামী লীগ কর্মী আবুল বাসারের ওপর হামলা করে ইউপি মেম্বার সোহেল। খবর পেয়ে আমাদের কর্মীরা ধাওয়া করলে সে পালিয়ে যায়। বিক্ষুব্ধ কর্মীরা তার মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য আবদুল হান্নান সোহেল বলেন, ‘আমি ও আমার বন্ধু মো. রাসেল মোটরসাইকেল নিয়ে রাস্তায় পাশে দাঁড়িয়ে ছিলাম। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তারা আমাদের দুজনকে ধাওয়া করে ও গুলিবর্ষণ করতে থাকে। এ সময় আমরা পালিয়ে যাই। পরে আমার বন্ধুর মোটরসাইকেলটি জ্বালিয়ে দেয়।’

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সহিদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে কোতোয়ালি পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ধর্মপুর এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

You cannot copy content of this page