কুমিল্লায় নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিতকরণে ইমামদের নিয়ে কর্মশালা

নিউজ ডেস্ক।।
নিরাপদ শ্রমঅভিবাসন প্রক্রিয়ায় ইমামদেরকে সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে বিদেশগনেচ্ছু, বিদেশগামী এবং বিদেশ ফেরত অভিবাসী কর্মীসহ জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে আজ বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লা জেলার ব্র্যাক লার্নিং সেন্টার মিলনায়তনে অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশের আয়োজনে নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক সচেতনতামূলক একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের অর্থায়নে ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর মাইগ্রেশন পলিসি ডেভেলপমেন্ট (আইসিএমপিডি) পরিচালিত অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশ (এমআরসি) আয়োজিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলার অতিরিক্ত জেলাপ্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন। আরও উপস্থিত ছিলেন আইসিএমপিডি বাংলাদেশের কান্ট্রিকো-অরডিনেটর মোহাম্মাদ ইকরাম হোসেন, কুমিল্লা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, কুমিল্লা ইসলামিক ফাউন্ডেসনের উপপরিচালক সরকার সারোয়ার আলম, কুমিল্লা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারি পরিচালক দেবব্রত ঘোষ, অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশের কো-অরডিনেটর মাহবুব আলম এবং অষ্ট্রিয়ার ভিয়েনা থেকে আগত আইসিএমপিডি’র সিনিয়র প্রোজেক্ট ম্যানাজার গোল্ডা মীরা রোমা এবং কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন থেকে ৫০ জন ইমামগ্ণ।

অভিবাসী তথ্য কেন্দ্রের কাউন্সেলর ইকবাল হোসেনের সঞ্চাচালনায় উক্ত কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্যে মোহাম্মাদ ইকরাম হোসেন বলেন, অভিবাসনকে নিরাপদ, সুষ্ঠ, নিয়মিত করতে ইমামদের ভুমিকা অপরিসীম কারন ইমামরা জনগনের সাথে সবচেয়ে বেশী যুক্ত থাকেন।

অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশের কো-অরডিনেটর মাহবুব আলম অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশ সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে ইমামদের অবহিত করেন, অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য ও কার্যাবলি তুলে ধরেন। তিনি এমআরসি বাংলাদেশের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য ও কাজ বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং অভিবাসন বিষয়ক যেকোন প্রয়োজনে এমআরসি বাংলাদেশের সাথে যোগাযোগের জন্য সকলকে আহবান জানান। অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র অভিবাসন সিদ্ধান্তে তথ্য সহায়তা। এছাড়াও এমআরসি কাউন্সেলর গোলাম মোস্তফা মানব পাচার রোধে ইউনিয়ন পরিষদের করণীয় ইউনিয়ন পরিষদেন বিভিন্ন কমিটি নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও তিনি অভিবাসনের নানা দিক এবং নিরাপদ অভিবাসনে ইউনিয়ন পরিষদের ভূমিকা ও করনীয় নিয়েও আলোচনা করেন।

বিদেশগামীদের প্রশিক্ষণের গুরুত্ব ও এ সম্পর্কে করনীয় বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন কুমিল্লা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ কামরুজ্জামান।

নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য, প্রবাসী প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এর বিভিন্ন দপ্তর ও এদের সেবা কার্যক্রম সম্পর্কে পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনের মাধ্যমে বিস্তারিত আলোচনা করেন কুমিল্লা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারি পরিচালক দেবব্রত ঘোষ।

দেবব্রত ঘোষ তার উপস্থাপনায় নিরাপদ, নিয়মিত, সুশৃঙ্খল এবং দায়িত্বশীল অভিবাসন নিশ্চিতকরণ, মানব পাচার রোধ, বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রক্রিয়ায় মধ্যসত্বভোগীদের দৌরাত্ব নিরসন, উচ্চ অভিবাসন ব্যয় হ্রাস, অভিবাসী কর্মীর অধিকার সুরক্ষা, অভিবাসী কর্মী ও তাদের পরিবারের নিরাপত্তা এবং কল্যাণ নিশ্চিতকরণে বর্তমান সরকারের দৃঢ় অঙ্গীকারের কথা ব্যক্ত করেন। তিনি বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতার গুরুত্ব সম্পর্কে আলোচনা করেন।

এছাড়াও তিনি বর্তমানে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সরকার ঘোষিত বিভিন্ন প্রণোদনার কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন।এছাড়াও তিনি প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের মাধ্যমে প্রবাসীদের জন্য ঋণ এবং এর ঋণ পাওয়ার উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেন। এছাড়াও তিনি নারী অভিবাসনের ঝুঁকি, সম্ভাবনা এবং সুবিধাসমূহ উল্লেখ করেন। এছাড়াও তিনি RPL-এর মাধ্যমে কিভাবে প্রবাস ফেরত কর্মীগণ তাদের দক্ষতাকে প্রতিষ্ঠানিক রুপ দেয়া যায়, সে সম্পর্কে সকলকে অবহিত করেন। কর্মশালায় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক, বোয়েসেল, বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে অবস্থিত শ্রম কল্যাণ উয়িং এবং বায়রা’র কার্যক্রম নিয়ে বিশদ আলোচনা করা হয়।

কুমিল্লা ইসলামিক ফাউন্ডেসনের উপপরিচালক সরকার সারোয়ার আলম বলেন, একমাত্র ইমামরাই পারে অভিবাসনের সঠিক বার্তা প্রত্যন্ত গ্রামঞ্চলে পৌঁছে দিতে যাতে মানুষ দালালের হাত থেকে রক্ষা পায়।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় কুমিল্লা জেলার অতিরিক্ত জেলাপ্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন বলেন, ইমামদের দ্বারা নিরাপদ অভিবাসনের প্রচারণার ক্ষেত্রে জেলাপ্রশাসন সব সময় তাদের পাশে থাকবে। এ ছাড়াও তিনি নারী অভিবাসনের যৌক্তিকতা নিয়েও আলোচনা করেন এবং এই কর্মশালার সফলতা কামনা করেন।

প্রশ্ন উত্তর পর্বে আইসিএমপিডি’র সিনিয়র প্রোজেক্ট ম্যানাজার গোল্ডা মীরা রোমা বলেন বাংলাদেশে আমাদের কার্যক্রম কেবল শুরু করেছি, আশা করছি বাংলাদেশে নিরাপদ অভিবাসনের জন্য আমারা ভবিষ্যতে কাজ করে যাব।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে কুমিল্লা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারি পরিচালক দেবব্রত ঘোষ, অংশগ্রহণকারী সদস্যদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন এবং জনসাধারণের ভোগান্তি, প্রতারণা রোধে কার্যকর ভূমিকা পালনের অনুরোধ জানান। এছাড়া তিনি বিস্তারিত তথ্যের জন্য www.probashi.gov.bd, www.bmet.gov.bd, www.wewb.gov.bd, www.bmet.comilla.gov.bd সাইটগুলো ভিজিট করার পরামর্শ দেন তিনি। কর্মশালায় আরো জানানো হয় যে, অভিবাসন বিষয়ে যেকোন তথ্য ও পরামর্শের জন্য এমআরসি বাংলাদেশের হেল্পলাইন নম্বর: ০১৭১৩০৮৬৩৩০ (কুমিল্লা) এবং ০১৭৩০৬৬৬৯৩৬ (ঢাকা) নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য পরামর্শ প্রদান করা হয়। এছাড়াও অভিবাসন বিষয়ে যেকোন তথ্য ও পরামর্শের জন্য এমআরসি বাংলাদেশের ফেসবুক ফেইজ (facebook.com/bangladeshmrc) থেকেও অভিবাসন বিষয়ে যেকোন তথ্য পাওয়া যাবে বলে কর্মশালায় জানানো হয়। অনুষ্ঠান শেষে সকলের একটি লিখিত মতামত গ্রহণ করা হয়।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page