কুমিল্লায় নৌকায় ভোট দেয়ায় বাড়িতে আগুন দেয়া অভিযোগ

বি এম মহিউদ্দিন মন্টিঃ
৭ ফ্রেরুয়ারী অনুষ্ঠিত হলো ৭ম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। কুমিল্লা জেলায় ২৪ টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেবিদ্বার উপজেলায় ১৫ টি ও বুড়িচং উপজেলায় ৯টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তার মধ্যে কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার ১৪ নং সুলতানপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে নূর মানিকচর এলাকায় নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ায় কৃষক হাসেমের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় নৌকা মার্কা বিরোধী ও সদ্য মেম্বার পদে নির্বাচন করা এলাহি বক্স ও তার পুত্র নুরু,ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আবু কালাম এবং তাদের সমর্থকরা, এমটাই দাবি করেছেন ভোক্তভোগী আবুল হাসেম ও স্থানীয়রা।

কৃষক আবুল হাসেম মিয়া আরো বলেন নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই আমার উপর এতো নির্যাতন এবং আমাকে মৃত্যুর হুমকিও দিচ্ছে। সোমবার মধ্য রাতে আমার বাড়িতে আগুন দিয়ে আমাকে নিঃস্ব করে দিয়েছে। আমার বাড়ির ১৪টি ঘর পুড়ে ছাই করে দিয়েছে আমার প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও লুট পাট করেছে।

আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চাই। আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আপনার মার্কা নৌকায় ভোট দেওয়ায় এবং স্থানীয় একজন সৎ লোক মেম্বার প্রার্থী মোসলেম সওদাগর (ফুটবল) মার্কাকে সমর্থন করায় আজ আমার উপর এতো অত্যাচার। আমি কুমিল্লা জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সুপারের নিটক আকুল আবেদন করছি আমার উপর যাহারা হামলা করেছে,বাড়িতে আগুন লাগিয়েছে তাদেরকে অতিদ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক।
১৪ নং সুলতানপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির বলেন যাহারা নৌকা প্রতীকের বিরোধী তাহারাই এমন তান্ডব করেছে। দলের সাইনবোর্ড লাগিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার ছবি তারা পা দিয়ে চাটে আমি তাদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি প্রশাসনের নিকট।

জুট মিলে কাজ করা নাছিমা বেগম বলেন এলাহি বক্স মেম্বারের ছেলে কাউছার ও জলিলের ছেলে তামিম আমাকে বার বার হুমকি দিয়ে বলেন নৌকায় ভোট দিলে আমাকে জানে মেরে ফেলবে এমন হুমকি দিয়েছে এবং তাহারা আমার সামনেই নৌকার ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিও ছিড়ে ফেলে এবং পা দিয়ে চাটে।

স্থানীয় ব্যবসায়ি শান্ত ইসলাম সুমন বলেন মোসলেম সওদাগর একজন সৎ মানুষ পুরো এলাকার মানুষ তাকে ভালোবাসেন বিপুল পরিমান ভোট পেয়ে যখন মেম্বান নির্বাচিত হওয়ার পথে ঠিক তখনই এলাহি বক্স প্রতিহিংসার বসিভুত হয়ে এলাকার নিরিহ হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি ঘর ভাঙ্গচুর করতে থাকে এবং তাদের সন্ত্রাস বাহিনী দিয়ে আবুল হাসেমের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়।

এদিকে সুলতানপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড থেকে মেম্বার পদে নির্বাচনে অংশ নেওয়া মোঃ মোসলেম সওদাগর বলেন এলাহি বক্স আমার জনপ্রিয়তা দেখে প্রতিহিংসা করে আমার নেতা কর্মিদের মেরে ফেলার হুমকি ধামকি দিচ্ছে। আমার পুলিং এজেন্টে থাকা ফরিদা ইয়াসমিনকেও মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে এলাহি বক্স বাহিনী।সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আবুল হাসেম মিয়ার বাড়িতে আগুন দেয় এই এলাহি বক্স তার ছেলে ও তার পালিত সন্ত্রাস বাহিনী। নৌকা মার্কা ও ফুলবল মার্কার সমর্থন কারীদের উপরে এলাহি বক্স তান্ডব লীলা চালাচ্ছেন। আমি যখন জয়ের পথে ঠিক সেই সময়ে এলাহি বক্স কিছু অসাধু নির্বাচন কর্মকর্তা ও প্রশাসনের সাথে আতাত করে আমাকে ২ ভোটে পরাজয় দেখিয়েন। আমি পুনরায় ভোট গননার দাবি করছি।

এ বিষয়ে দেবিদ্বার উপজেলার ১৪ নং সুলতানপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার পদে নির্বাচনে অংশ নেওয়া এলাহি বক্স থেকে জানতে চাইলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page