কুমিল্লায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজের মেয়েকে গলাকেটে হত্যা করে বাবা

মোঃ জহিরুল হক বাবু।।
কুমিল্লার চান্দিনায় সম্পত্তি বিরোধের জেরে ভাতিজাদের ফাঁসাতে নিজ মেয়ে ছালমা আক্তারকে (১৪) গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করে বাবা সোলেমান (৪০)।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) এম তানভীর আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এঘটনায় পরিকল্পনাকারী সোলেমানের উকিল শ্বশুর আব্দুর রহমান, প্রতিবেশী খলিলকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া সোলাইমান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে এখনও গ্রেফতার দেখানো হয়নি।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) এম তানভীর আহমেদ জানান, ঘটনাটি তদন্ত করতে গেলে বাদী ও আসামীদের কথায় গড়মিল পাওয়া যায়। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বাবা সোলেমানে উকিল শ্বশুর প্রতিবেশী আব্দুর রহমান, খলিল মাদ্রাসা ছাত্রী ছালামার হত্যার সাথে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করা হয়। তাদের পরামর্শে বাবা মেয়েকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

তিনি আরও বলেন, নিহত সালমার পিতা সোলেমান তার ভাতিজা শাহজালাল ও শাহ কামাল সাথে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ ছিল। তাদের হত্যা মামলা দিয়ে ফাঁসাতে এবং ভাতিজাদের জায়গা দখলের জন্য নিজ মেয়ে ছালমাকে নিশৃংসভাবে হত্যা করে। পরবর্তীতে বুধবার সোলাইমান তাকে হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে সংবাদ মাধ্যমকে জানান।

বিষয়টি সাজানো নাটক ছিল। আটক দুই জন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করে। ঘটনায় জড়িত অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলমান রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২ অক্টোবর কুমিল্লার চান্দিনায় মাদরাসাছাত্রী ছালমা আক্তারকে (১৪) গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় অজ্ঞাত তিনজনসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা দায়ের করেছিল মেয়ের হত্যাকারী বাবা সোলাইমান।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page