কুমিল্লায় বঙ্গবন্ধুর ছবিতে আগুন দেয়া ফরিদ মোল্লা’কে গ্রেপ্তারের দাবী

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ভেঙ্গে আগুন ধরিয়ে দেয়া ফরিদ মোল্লার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আবেদন করেছেন মোঃ দেলোয়ার হোসেন মজুমদার নামে এক মুক্তিযোদ্ধা।

তিনি কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপারের নিকট এ আবেদন পত্র জমা প্রদান করেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের আইজি ও কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের নিকট অনুলিপি দেন বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ দেলোয়ার হোসেন মজুমদার।

আবেদনে তিনি উল্লেখ করেন, ২০০১ সালের জাতিয় নির্বাচনের পরদিন কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট গ্রামের ডাক্তার মাওলানা ইসমাইল মোল্লার ছেলে মোঃ ফরিদ মোল্লা রায়কোট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রবেশ করে অফিস কক্ষে টানানো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি নামিয়ে রশি দিয়ে টেনে বিদ্যালয়েল মাঠে নিয়ে আসে। এসময় ছবি ভাঙ্গচুর করে আগুন জ্বালিয়ে দেয়।

পরবর্তীতে বিদ্যালয় কমিটি তাদের মিটিংয়ে এর সত্যতা তুলে ধরে একটি রেজুলেশন করেন। দীর্ঘদিন বিএনপি জামায়াত সরকার ক্ষমতায় থাকালীন সময়ে বিষটি তদন্ত না করে ধামা চাপা দেয়া হয়।

বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন বিভিন্ন অফিসে এ নিয়ে অভিযোগ করেও কোন ফল পায় নি। অভিযুক্ত ফরিদ মোল্লা বর্তমানে একটি কমিউনিটি ক্লিনিকে চাকুরী পেয়ে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তাই ফরিদ মোল্লার বিচারের দাবীতে আবেদন করেছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ওই সময়কার বিদ্যালয়ের রেজুলেশন কপি যাচাই করলে ছবি ভাংচুরের বিষটি প্রমান পাওয়া যাবে। এ বিষয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এদিকে বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেনের আবেদনের প্রেক্ষিতে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশকে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন পুলিশ সুপার।

নাঙ্গলকোট থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ইয়ামিন বলেন বিষয়টি তদন্ত চলছে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page