কয়েলের আগুনে পুড়ল কৃষক নারায়ণের স্বপ্ন; তিনটি গরু ও একটি ঘর পুড়ে ভষ্মিভূত

এন এ মুরাদ, মুরাদনগর।।
কুমিল্লার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন ঘোড়াশাল গ্রামে কয়েলের আগুনে পুড় ভষ্মিভূম ৩ টি গরু ও একটি বসত ঘর। সোমবার দিবাগত রাত ১টায় মন্টু পালের বাড়ির নারায়ণ পালের ঘরে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে ধুলিসাৎ হয়ে যায় কৃষক নারায়ণের স্বপ্ন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কৃষক নারায়ণ নিত্যান্তই দরিদ্র, তিনি দুধ বিক্রি করে সংসার চালাতেন। কৃষি কাজই তার প্রধান পেশা। প্রতিবছর ঈদকে সামনে রেখে দুই-তিনটি ষাড় বড় করে থাকেন। এবারও তার ঘরে একটি গাভী , একটি বড় ষাড় ও একটি বাছুর ছিল। সোমবার (১১ এপ্রিল) রাতে অগ্নিকান্ডের ঝড়ে পুড়ে নিঃশেষ হয়ে যায় কৃষক নারয়ণের একমাত্র বসত ঘর ও গোয়ালের তিনটি গরু। ধারনা করা হচ্ছে গোয়াল ঘরের কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

নারায়ণ পালের ছেলে বিষ্ণু পাল জানায়,রাত ১১ টায় গোয়াল ঘরে গরুকে খাবার ও কয়েল ধরিয়ে দিয়ে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। মাঝ রাতে আগুনের পুড়ার কুড়মুড়ে বিকট শব্দে জেগে উঠে দেখি পুড়ে শেষ হয়ে যাচ্ছে। তখন আমরা প্রাণে বেঁচে গেলেও গোয়াল ঘরে থাকা তিনটি গরুসহ ঘরের আসবাপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। গরুগুলোর আনুমানিক বাজার মূল্য হবে প্রায় ৪ লক্ষ টাকা।

টনকী ইউপি চেয়ারম্যান তৈইবুর রহমান তুহিন বলেন, খবর পেয়ে আমি রাতেই নারায়ণ পালের বাড়িতে যাই । সেখানে গিয়ে দেখি বসত ঘরসহ তিনটি গরু পুড়ে ছাই। আগুনের লেলিহান শিখা অন্য দিকে মুড় নেওয়ার পূর্বেই এলাকাবাসীর সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই।

মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) অভিষেক দাশ বলেন, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে মঙ্গলবার বিকালে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটিকে আর্থিকভাবে সহায়তা দেওয়ার বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে অবহিত করা হবে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page