তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল

তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. পারভেজ হোসেন সরকারের বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও মহিলা লীগের নেতা-কর্মীরা। এ সময় তাঁকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন তাঁরা।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১০টায় উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটক থেকে ঝাড়ু মিছিল বের হয়। এরপর গৌরীপুর-হোমনা সড়ক প্রদক্ষিণ করে তিতাস থানা ভবনের সামনে গিয়ে এক প্রতিবাদ সভা করেন মিছিলে অংশগ্রহণকারী নেতৃবৃন্দ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মুন্সি মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তারা বলেন, গত মঙ্গলবার (৫ জুলাই) বিকেলে তিতাস উপজেলার ভিটিকান্দি ইউনিয়নে গোমতী নদীর তীরবর্তী ক্ষতিগ্রস্ত বাসিন্দাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন কুমিল্লা-২ (হোমনা-তিতাস) আসনের সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ মেরী। এই ত্রাণ বিতরণকে উপহাস করে এবং সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ মেরীকে ইঙ্গিত করে তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তাঁর ফেসবুক ওয়ালে অশালীন ভাষায় একটি পোস্ট করেন। এরই প্রতিবাদে তিতাস উপজেলা চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল এবং অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন সংগঠনগুলোর নেতা-কর্মীরা।

বক্তারা আরও বলেন, অবিলম্বে পারভেজ হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। নতুবা তিতাসে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন।

প্রতিবাদ সভার বক্তারা হলেন, তিতাস পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিনুল ইসলাম সোহেল সিকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. নাছির উদ্দিন, শেখ ফরিদ প্রধান, সহসভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন, সাবেক সদস্যসচিব দেওয়ান মো. জাহাঙ্গীর, দপ্তর সম্পাদক মীর শওকত লিটন, কুমিল্লা উত্তর জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সারওয়ার হোসেন বাবু, কড়িকান্দি সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাইফুল আলম মুরাদ, জগতপুর ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান, ভিটিকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান বাবুল আহম্মেদ, মজিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম সরকার, যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজমুল হাসান কিরন, কড়িকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছাইদুর রহমান ভূইয়া ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুল হাসান তুষার প্রমুখ।

এ বিষয়ে পারভেজ হোসেন সরকার বলেন, ‘আমি গত মঙ্গলবার করোনার বুস্টার ডোজ নিয়ে শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে ঢাকায় আছি। আজ সকালে জানতে পাই আমার স্ট্যাটাস নিয়ে এত কিছু। আমার স্ট্যাটাসটি পড়লে আপনারা বুঝতে পারবেন, আসলে আমি এমপি মহোদয়কে নিয়ে স্ট্যাটাস দেইনি। আমি আমার নিজেকে নিয়েই স্ট্যাটাস দিয়েছি।’

চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘মাননীয় সংসদ সদস্যকে জড়িয়ে যে এগুলো করছে, ‘আমি মনে করি রাজনৈতিক উদ্দ্যশ্য প্রণোদিত এবং সামনে তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরেই ঘোলা পানিতে মাছ শিকার উপক্রম। তবে আমি সুস্থ হলে ঈদের পর আপনাদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করব।’

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page