পাণ্ডবদের ছাড়াই চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় আনন্দ বেশি: নাফিসা কামাল

ক্রীড়া প্রতিবেদক।।
দেশের ক্রিকেটের পাঁচ বড় তারকা-মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিম; যাদের পঞ্চপাণ্ডব নামে ডাকা হয়।

দেশের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট লিগ বিপিএলেও এই পাণ্ডবদের দলে ভেড়াতে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের কাড়াকাড়ি লাগে। তাদের একজনকে পাওয়া মানেই তো দলের জন্য বাড়তি নির্ভরতা।

তবে এবার একটু ভিন্ন পথে হেঁটেছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। সরাসরি চুক্তি ও ড্রাফট থেকে শক্তিশালী দল সাজালেও কুমিল্লা নেয়নি পঞ্চপাণ্ডবের কাউকে।

দল সাজানোর সময়ই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কর্ণধার নাফিসা কামাল বলেছিলেন, ‘পঞ্চপাণ্ডব’খ্যাত পাঁচ ক্রিকেটারকে শিবিরে নেওয়ার কোনো পরিকল্পনা ছিল না তাদের।

সেই পরিকল্পনায় সফল কুমিল্লা। পঞ্চপাণ্ডব ছাড়াই হয়েছে চ্যাম্পিয়ন। তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা ঘরে তোলার পর ফের নাফিসা কামালের সামনে এলো পাণ্ডব প্রসঙ্গ।

বিপিএল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার রাতে প্রথমে এই বিষয়টি এড়িয়ে গেলেও পরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কর্ণধার বলেই ফেলেন, পাণ্ডবদের কেউ দলে ছিলেন না বলেই চ্যাম্পিয়ন হতে পারাটা বাড়তি আনন্দের।

নাফিসা কামাল বলেন, `আমরা চেয়েছিলাম তরুণ একটা দল গড়তে। আমাদের দলে কিন্তু কোন পাণ্ডব ছিল না। এক দলে তিনজন পাণ্ডব ছিল (মিনিস্টার ঢাকায়), রানার্সআপ দলেও একজন ছিল। ফলে এত পাণ্ডবদের ছাড়াই চ্যাম্পিয়ন হওয়াটা আমাদের জন্য বেশি আনন্দের।’

এর আগে ২০১৫ এবং ২০১৯ সালের বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল কুমিল্লা। ২০১৫ সালে কুমিল্লার অধিনায়ক ছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

২০১৯ সালে এবারের মতো ইমরুল কায়েস অধিনায়ক থাকলেও ফাইনালে ৬১ বলে ১৪১ রানের দানবীয় ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন পঞ্চপাণ্ডবের অন্যতম সদস্য তামিম ইকবাল।

এবার পঞ্চপাণ্ডবের কেউই ছিলেন না কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে। তাদের দলে না নেওয়ার চ্যালেঞ্জ জিতে তাই বাড়তি উচ্ছ্বাস নাফিসা কামালের।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page