ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে কুমিল্লায় এসে বিভিন্ন এলাকায় চুরি ছিনতাই করতো তারা

মোঃ জহিরুল হক বাবু।।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে কুমিল্লায় এসে বিভিন্ন বাসা-বাড়ী, শপিংমলসহ বিভিন্ন এলাকায় চুরি ছিনতাই করে আসছিলো একটি চক্র। এই চক্রের ৭ নারী সদস্যকে আটক করেছে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলণ কক্ষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান।

তিনি বলেন বুধবার বিকেলে নগরীর দক্ষিণ চর্থা টমছমব্রীজ সংলগ্ন চৌ-রাস্তার মোড়ে জান্নাতুল ফেরদাউস নামে এক নারীকে বোরকা পরিহিত ৭জন মহিলা কথাবার্তা বলা শুরু করে।

কথাবার্তার একপর্যায়ে ওই নারীর ভ্যানিটি ব্যাগের চেইন খুলে নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন চুরির চেষ্টাকালে ওই নারী টের পেয়ে চিৎকার দেয়া।

পাশেই উপস্থিত কোতয়ালী থানা পুলিশের টহল দল বিষয়টি টের পেয়ে পথচারীদের সহায়তায় চোরচক্রের ৭জন মহিলা সদস্যকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতদের নাম ঠিকানা জিজ্ঞাসাবাদে ১। পাখি আক্তার (২৫), পিতা-মো: জহির মিয়া, স্বামী রাসেল মিয়া, ২। ফাতেমা বেগম(৪০), পিতা-সাহের মিয়া, স্বামী-সুহেল মিঘা, ৩। শাহানা নাইমা (২৫), পিতা-সিরাজুল ইসলাম, স্বামী শিপন, ৪। দিলারা বেগম (৩০), পিতা-আক্কাস মিয়া, স্বামী-মো: রুবেল, ৫। হনুফা (৪০), পিতা- জলিল মিয়া, স্বামী- মো: শাহীন ৬। পারভীন আক্তার(২৫), স্বামী-নিজয়া উদ্দিন, পিতা-মহরম আলী, সর্ব সাং-ধরমন্ডল, থানা- নাসিরনগর, জেলা-ব্রাহ্মণবাড়ীয়া এবং ৭। ফাতেমা বেগম (২৪), পিতা- মৃত রফিক মিয়া, স্বামী মহিউদ্দিন, সাং- পাখিয়ালগা, থানা-বড়লেখা, জেলা- মৌলভীবাজার বলে জানা যায়।

পুলিশ সুপার আরো বলেন আসন্ন ঈদ মৌসুমকে টার্গেট করে মহিলা চোরচক্রের গ্রেফতারকৃতরা কুমিল্লা শহরের বিভিন্ন শপিংমল, মার্কেট ও জনবহুল এলাকায় সংঘবদ্ধ হয়ে বিভিন্ন কৌশলে চুরি করার জন্য এসেছিল।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে পূর্বেও একাধিক চুরির মামলা রয়েছে বলে পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page