মুরাদনগরে ইভটিজিংয়ের অপমান সইতে না পেরে মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা!

মনির খাঁন মুরাদনগর প্রতিনিধি।।

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলায় ইভটিজিংয়ের অপমান সইতে না পেরে সোমাইয়া আক্তার(১৫) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্রী বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন।

মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা থানাধীন বাঙ্গরা পশ্চিম ইউনিযনের নবীয়াবাদ গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাদ্রাসা ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।

নিহত সোমাইয়া আক্তার(১৫) মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা পশ্চিম ইউনিয়নের নবীয়াবাদ আঃ ওয়াদুদ সরকার ফাজিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থী ও নবীয়াবাদ গ্রামের গোলাম ছান্দানীর মেয়ে।

নিহতের মা রিনা আক্তার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার বিকেলে সোমাইয়া বাড়ির পাশে কালবাটের উপর দুই জন ছেলের সাথে কথা বলছিল। এসময় নবীয়াবাদ গ্রামের হোসেন মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া(২৭), হাকিম মিয়ার ছেলে জাকির মিয়া(২৭), হেলাল মিয়ার ছেলে শরিফ মিয়া(২২), কাদির মিয়ার ছেলে শাহাদাত(২৬), কাশেম মিয়ার ছেলে ইসমাইল(২৩), মোর্শেদ মিয়ার ছেলে সোহাগসহ(২৬) একদল বখাটে তাদেরকে কথা বলতে দেখে বিভিন্ন কু-রুচি মন্তব্যসহ অপমান করে। সেই অপমান সইতে নাপেরে মঙ্গলবার বিকেলে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে পরে বাড়ির লোকজন তাকে মূহুর্ষ অবস্থায় প্রথমে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাত ১০টায় তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতার্ (ওসি) মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, মৃত্যুর খবরটি পেয়েছি। এখন পর্যন্ত থানায় কেও অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনী ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page