মুরাদনগরে প্রকৌশলীর তৎপরতায় সড়ক থেকে নিন্ম মানের রাবিশ তুলে নিলেন ঠিকাদার

এন এ মুরাদ, মুরাদনগর।
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার সিএন্ডবি হতে বাইড়া- টনকী সড়কের এক হাজার ২০ মিটার সড়ক থেকে রাবিশ ইট তুলে নিলেন ঠিকাদার। এলাকাবাসীর তোপের মুখে ও প্রকৌশলীর কাজের তৎপরতায় ঠিকাদার এ কাজ করতে বাধ্য হন।

সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) অর্থায়নে বাইড়া টনকী সড়কের এক হাজার বিশ মিটার নির্মাণ কাজ করছিল একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান । এরা সড়কটির বিভিন্ন অংশে রাবিশ ফেলে কাজ করায় ক্ষোভে ফুঁসে উঠেন এলাকাবাসী। বিষয়টি নিয়ে প্রথমে সোস্যাল মিডিয়া ও পরে একাধিক পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হলে টনক নড়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের।

৩১ মার্চ উপজেলা এলজিইডি অফিস ঠিকাদারকে নোটিশ করেন তিন দিনের মধ্যে নিন্ম মানের ইট ও রাবিশ তুলে ফেলতে।

এলজিইডির এমন তৎপরতায় মঙ্গলবার সরেজমিন পরিদর্শনকালে দেখা যায়, শ্রমিকরা ওই সড়কের নির্মাণকাজে ব্যবহার করা নিম্নমানের উপকরণ তুলে নিচ্ছেন।

স্থানীয় দেলোয়ার হোসেন, আবু জাফর, শিপন ও আকাশসহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, সিডিউল অনুযায়ী সড়কটির নির্মাণকাজ চলছে না। মেকাডামের মধ্যে এক নাম্বার ইট না রাতের আঁধারে রাবিশ ঢুকিয়ে কাজ করছিল ঠিকাদার। ইট হাতে নিয়ে সামান্য চাপ দিলেই পাউডার হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি জানাজানি হলে ইঞ্জিনিয়ার এসে ব্যাবস্হা নেন।

এবিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী রায়হানুল আলম চৌধুরীর বলেন, রাতের আঁধারে এক নাম্বার ইটের স্হলে রাবিশ ঢুকিয়ে কাজ করছেন এমন অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে কাজ বন্ধ করানো হয়। পরে সরেজমিনে উপস্থিত থেকে ঠিকাদারকে দিয়ে রাবিশ অপসারণ করা হয়েছে। সড়কটির নির্মাণ কাজে কোনো অনিয়ম করার সুযোগ দেয়া হবে না।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page