কুমিল্লায় বাকিতে সিগারেট না দেওয়ায় দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা

হোমনা প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার তিতাসে সিগারেট বাকিতে না দেওয়ায় মানিক মিয়া (৩২) নামের এক দোকানির ছুরিকাঘাতে মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা কানাইনগর গ্রামের ভূইয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত দোকানি মানিক মিয়া ওই গ্রামের মো. মোখলেস ভূঁইয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত হলেন—উপজেলার কানাইনগর গ্রামের ভূঁইয়া বাড়ির নায়েব আলীর ছেলে বাহাউদ্দীন।

নিহতের স্ত্রী তাসলিমা আক্তার বলেন, ‘বাহাউদ্দীন আমার স্বামী মানিকের কাছে সিগারেট বাকি চায়। কিন্তু দোকানে সিগারেট না থাকায়, আমার স্বামী বলেন-সিগারেট নাই। এতে বাহাউদ্দীন ক্ষিপ্ত হয়ে আমার স্বামীর সাথে ঝগড়া শুরু করে। একপর্যায়ে হাতাহাতি করে ঘরে চলে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘তারপর বাহাউদ্দীন ও তার ভাই জালাল উদ্দীন দা নিয়ে আমার স্বামীকে কোপাতে আসে। প্রতিবেশীদের বাধার পরও দোকানে ঢুকে জালালউদ্দীন আমার স্বামীকে জাপটে ধরে, তার ভাই বাহাউদ্দীন গলায় আঘাত করে।’

তছলিমা বেগম জানান, মুমূর্ষু অবস্থায় মানিক মিয়াকে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। পরে ঢামেকে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের স্ত্রীর দাবি, অভিযুক্তরা বাকিতে খরচ নিয়ে অনেক টাকা জমিয়েছেন। সেই টাকা চাওয়ায় তার স্বামীকে এর আগেও কয়েকবার মারধর করা হয়েছে।

এ বিষয়ে তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাঞ্চন কান্তি দাস বলেন, ‘সিগারেট বাকি না দেওয়ার জের ধরে এক দোকানিকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।’

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page