কুমিল্লায় আটদিন পর নিখোঁজ হওয়া ৪ বোন উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক।।
আটদিন আগে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলা থেকে নিখোঁজ হওয়া চার বোন আত্মগোপনে ছিল। পারিবারিক কলহের কারণেই তারা এ সিদ্ধান্ত নেয়।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তাদের উদ্ধারের পর এ তথ্য পাওয়া যায়। শুক্রবার (৩ জুন) একসংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি জানান পিবিআই কুমিল্লার পরিদর্শক তৌহিদুল ইসলাম। ।

আত্মগোপনে যাওয়া বোনেরা হলো- তাসনিম জাহান (১৭), মারজাহান (১৪), তাজিন সুলতানা (১২) ও মাইশা। তারা সবাই মাদরাসার শিক্ষার্থী।

সংবাদ সম্মেলন থেকে জানা গেছে, কুমিল্লা নগরীর জাঙ্গালিয়া এলাকার হালিমা বেগমের বাড়ি থেকে নিখোঁজ চার বোনকে উদ্ধার করে পিবিআই। তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এর আগে আত্মগোপনে যাওয়া চার বোনের সঙ্গে কথা বলে পিবিআই। জানা যায়, তাদের বাড়ি নাঙ্গলকোট উপজেলার মৌকরা ইউনিয়নের কালেম গ্রামে। বাবার নাম মজিবুল হক। তিনি উগ্রমেজাজী স্বভাবের এবং স্ত্রীর সঙ্গে প্রতিনিয়ত ঝগড়া-বিবাদ করেন। যেদিন চার বোন আত্মগোপনে যান, সেদিন সকালেও তাদের বাবা-মা ঝগড়া করেছিলেন।

এ সময় তারা ঘর ছেড়ে বেরিয়ে যেতে চায়। মজিবুল হকও তার ঘরে থেকে বের হয়ে চলে যেতে বলেন। এরপর বিকেলের দিকে তাদের নানী এসে তাদের নিজের বাড়ি নিয়ে যান।

২৫ মে নানার বাড়ি গেলেও চার বোনের ভেতরে রাগ ছিল। ২৬ মে তারা মাদরাসার নাম করে বাড়ি থেকে বের হয়ে উপজেলার ফতেহপুর এলাকায় চলে যায়। সেখান থেকে বাসে উঠে চলে আসে জাঙ্গালিয়ায়। স্থানীয় এক অটোরিকশা চালকের মাধ্যমে হালিমা বেগমের বাড়িতে একটি রুম ভাড়া নেয় চার বোন।

পিবিআই জানায়, রাগ করে বাড়ি থেকে বের হয়ে যাওয়া বোনেরা হালিমার বাসা ভাড়া নিলে তার মনে সন্দেহ জাগে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বা পত্র-পত্রিকা না পড়ায় চার বোনের হারিয়ে যাওয়ার বিষয়টি তিনি জানতে পারেননি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পিবিআই’র পরিদর্শক মনজুর আলম, হিলাল উদ্দীন, মোবারক হোসেন ও বিপুল চন্দ্র দেবনাথ।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page