কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য সালমা আক্তার বিউটির বিরুদ্ধে শ্বাশুড়ির সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোটারঃ
কুমিল্লা সদর দক্ষিনের তুলাতুলি গ্রামের কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য সালমা আক্তার বিউটি ও তার স্বামী মোঃ ইসমাইল খোকনের ক্ষমতার অপব্যবহার করে জমি দখল, আত্মসাৎ, মারধর, হুমকি-দামকিসহ নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে কুমিল্লা নগরীর একটি পাটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করেছে তাঁর শ্বাশুড়ি ও বাসুর।

এক লিখিত সংবাদ সম্মেলনে সদর দক্ষিনের তুলাতুলি গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে জাপান প্রবাসী ফরিদুল আলম বলেন, পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ সম্পদ মা। আমরা ২ ভাই ও ৩ বোন মিলে আমাদের মায়ের খোঁজ খবর রাখি, অথচ একই মায়ের গর্ভে ধারণ করে আমাদের পরিবারের মেজ ভাই মোঃ ইসমাইল খোকন ও তার স্ত্রী কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য সালমা আক্তার বিউটি ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে মাকে করে নির্মম নির্যাতন। বাবা মারা যাওয়ার পর থেকেই কোথায় মাকে একটু দেখবে, একটু ভালোবাসবে, তা না করে মায়ের মুখের খাবার কেড়ে আর মাকে যন্ত্রণা করে মেরে ফেলার পরিকল্পনা চালাচ্ছে সেই কুলাংগার ও মীরজাফর স্ত্রী। যিনি বিগত তিন বছর ধরে জেলা পরিষদের মহিলা প্যানেল চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে চলেছে। সে তাঁর ব্যক্তিগত রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করে শাশুড়ি এবং ভাসুর ও দেবরের উপর হুমকি দামকি, সম্পত্তি জবর দখল করার চেষ্টা করছে। জায়গা সম্পত্তি দখলের মাধ্যমে ব্যাপক অশান্তি সৃষ্টি করে চলেছে। তার বাবা আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ মোস্তফা হোসেন মজুমদার বাচ্চুর রাজনৈতিক প্রভাবকে কাজে লাগিয়ে সে এলাকার নিরীহ মানুষের সাথে বাজে ব্যবহার করে চলেছে।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, .কুমিল্লার গর্ব জননেতা সারা বাংলার অহংকার আমাদের সবার প্রিয় জননেতা মাননীয় অর্থমন্ত্রীর আ হ ম মোস্তফা কামাল। অথচ প্রতিটি কার্যক্ষেত্রে এই মহিলা ওনার নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে, আমাদের ভয়ভীতি ও হুমকি দামকি দিচ্ছে, সাধারন মানুষকে হয়রানি করছে। মাননীয় মন্ত্রী অনেক কিছুই জানেন না কিন্তু অনেক জায়গায় ওনার নাম ব্যবহার করছে। অনেক জায়গায় মাননীয় মন্ত্রীর পিএস এর নাম ব্যবহার করে। সাথে আরেক প্রবীণ রাজনীতিবীদ জননেতা নেতা মুজিবুল হক মুজিব এর নাম ব্যবহার করে। বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের ব্যাক্তি বর্গের সাথে ছবি তুলে নিজেকে প্রভাবশীলী হিসেবে জাহির করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ফরিদুল আলম আরো বলেন, বিউটি আক্তার ও তার স্বামী আমাদের মায়ের সাথে যে ব্যবহার করছে তা অমার্জনীয়। আমরা সবাই চাই বৃদ্ধা মা যেন আমাদের বাসায় থাকে কিন্ত তারা চায় মা কে বাসা থেকে বিতারিত করতে। আমরা ভাইয়েরা জাপান প্রবাসী হওয়ার কারনে বাড়িতে তারা ছাড়া আর কেই থাকেনা। আর এ সুযোগে আমাদের সম্পত্তি দখল করতে মাকে বাড়ি থেকে তাড়াতে চাচ্ছে। মা বাসায় থাকলে তারা পুকুরের মাছ, বাড়িতে লাগানো ফলফলাদিসহ যাবতীয় জিনিস ভোগ করতে অসুবিদা হয় আর এসব লুটপাট করতে বাধা দিলে মাকে করে নির্যাতন,চরম দূর্ব্যবহার ও মাকে মারধর করতে আসে। তারা মাকে প্রতিনিয়ত মানসিক নির্যাতন করে, কেউ বাড়িতে আসলে তাদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে যাতে বৃদ্ধ মাকে কেউ দেখতে না আসে বা সহযোগিতা করতে না আসে। গাছপালা কেটে ফেলা, ঘুমানোর ব্যঘ্যাত করা, চলাচলের রাস্তায় কাটা ফেলে রাখা, উঠানে কাপড় চোপড় শুকানোর নামে রশি বেধে রাখাসহ নানান মানসিক নির্যাতন প্রতিনিয়ত তারা করছেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা ভাইয়েরা সবাই বাড়িতে থাকি না বলে জমির অংশ হিসাব না করে নিজেদের মত করে জমি দখল করে নিচ্ছে, নিজের ছেলে সন্তানের নামে দলিল করে নিচ্ছে, বিদেশ থেকে আমাদের পাঠানো সকল কষ্টার্জিত অর্থ আত্মসাৎ করে ফেলে। তাদের এ নির্যাতনের কারনে আমাদের মা হসপিটালে কয়েক বার ভর্তি হয়। প্রচন্ড অসুস্থ হলেও তারা কখনোই মাকে দেখতে আসে না। এ নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম খোকাসহ স্থানীয় ব্যাক্তিবর্গ কয়েক দফা সূরাহা করার চেষ্ঠা করেও ব্যর্থ হয়। বিউটি তাদের কোন কথা কর্ণপাত করেনা এবং বিচার মানেনা। উল্লেখিত বিষয়টি নিয়ে আমরা আমরা তার এ বিভিন্ন অপকর্ম থেকে মুক্তি চাই, এতে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০