পিছিয়েছে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন; বসবে প্রশাসক

নেকবর হোসেন।।
আগামী ১৬ মের মধ্যে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকলেও তা হচ্ছে না। সেটি পিছিয়ে জুনে নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের পর্যাপ্ত প্রস্তুতি না থাকায় সময় অনুযায়ী ভোটের আয়োজন করা যাচ্ছে না। তবে আগামী ২০ জুনের মধ্যেই কুসিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে ইসির প্রথম সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে কমিশনের সভা শেষে এ তথ্য জানান ইলেকশন কমিশন (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবির খোন্দকার।

মো. হুমায়ুন কবির খোন্দকার জানান, কমিশনের পরবর্তী সভায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিলের সিদ্ধান্ত হবে এবং ওই দিনই তফসিল ঘোষণা করা হবে। এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘১৬ মের মধ্যে নির্বাচনের আয়োজন করার কথা থাকলেও তা হয়ে উঠছে না।’

এই নির্বাচনে কোনো আইনি জটিলতা আছে কি না, তা জানতে চেয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগে গত ৭ মার্চ চিঠি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেই চিঠির জবাব এসেছে গতকাল সোমবার—এমন তথ্য জানিয়ে ইসি সচিব বলেন, নির্বাচনটি সুন্দর ও সুষ্ঠু করার লক্ষ্যে তারিখ পেছানো হয়েছে।

নির্বাচন সময়মতো না হওয়ায় আইনের ব্যত্যয় ঘটবে কি না, জানতে চাইলে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটবে না বলে কমিশন মনে করে।’

এর আগে বেলা ১১টায় নির্বাচন কমিশনের সভাকক্ষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বে প্রথম সভা শুরু হয়।

২০১৭ সালের নির্বাচনে বিএনপি নেতা মনিরুল হক সাক্কু দ্বিতীয়বারের মতো এ সিটিতে নির্বাচিত হয়েছিলেন। এই সিটিতে সে সময় ভোট হয়েছিল ১০৩টি কেন্দ্রে। মোট ভোটার ছিল ২ লাখ ৭ হাজার ৫৬৬ জন।

২০১১ সালে দুটি পৌরসভাকে একীভূত করে গঠন করা হয় কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নামে নতুন একটি করপোরেশন। ওই বছরই প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ২০১৭ সালে এসে এ সিটি পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েকটি ইউপিকে অন্তর্ভূক্ত করে আয়তন বাড়ানো হয় প্রায় তিনগুণ। কুমিল্লা সিটি করপোরেশ ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page