মুরাদনগরে মাদক ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করায় হামলার শিকার মাদরাসা পরিচালক

নিউজ ডেস্ক।।
মাদকবাণিজ্য, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করায় নৃশংস হামলার শিকার হয়েছপন কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার রহিমপুর হেজাজিয়া এতিমখানা মাদরাসার পরিচালক এবং মুরাদনগর উপজেলার বেসরকারি এতিমখানা ও কওমি মাদরাসা কল্যাণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ লোকমান।

শনিবার সন্ধ্যায় রহিমপুর গ্রামে সংঘটিত এ হামলায় কাজী লোকমানকে রক্ষা করতে এসে তার ছেলে মেহেদী হাসান ও একই গ্রামের সাবেক মেম্বার ময়নাল হোসেনও গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা বর্তমানে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এঘটনায় রবিবার রাতে মুরাদনগর থানায় মামলা হয়েছে।

হামলার ঘটনার বিষয়ে মামলার বাদী আহত ময়নাল হোসেন জানান, আশরাফ মেম্বার এলাকায় মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজিসহ সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নিয়ন্ত্রণ করেন। এলাকায় তার একটি সশস্ত্র বাহিনী রয়েছে। ইতিপূর্বে সে ছিনতাই ও অস্ত্র মামলায় জেলও খেটেছে। মাদরাসার পরিচালক কাজী লোকমানসহ আমরা বরাবরই তার এসব অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করে আসছি। আর একারণেই আমরা আশরাফ মেম্বারের টার্গেটে পরিণত হই।মাদক, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করাতেই শনিবার সন্ধ্যায় পরিকল্পিতভাবে এ হামলা করা হয়েছে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page