সামান্য বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে নগরীর অনেক এলাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
ভোটের মাঠে প্রার্থীরা নানা প্রতিশ্রæতি দিলেও সাধারন ভোটাররা যাচ্ছে নগরীর প্রধান দুই সমস্যার সমাধান। বর্ষার জলাবদ্ধতা আর বারোমাসি যানজট থেকে মুক্তি চান নগরবাসী। তারা বলছেন “স্বপ্নের মেগাসিটি চাই না, যানজট ও জলাবদ্ধতা মুক্ত নগরী চাই।”

কুমিল্লায় গতকাল বিকেলে মাত্র দেড় ঘণ্টার বৃষ্টিতে পুরো নগরীতে দেখা গেছে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা। তলিয়ে যায় নগরীর অনেক সড়ক। পানি ঢুকে পড়ে হাসপাতাল, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও মানুষের বাসা-বাড়িতে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ২ টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত মাত্র দেড় ঘণ্টার টানা বৃষ্টিতে এ জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়।

সরেজমিনে কুমিল­া সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, নগরীর কান্দিরপাড় টাউনহল মাঠ, নগরের বাদুড়তলা এলাকার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত সড়ক, স্টেডিয়াম এলাকা, বাগিচাগাঁও জেলা পরিষদ বাংলো সড়ক, ডায়াবেটিক হাসপাতাল, জিলা স্কুল সড়ক, বিষ্ণুপুর, ডিসি রোড,রেসকোর্স, অশোকতলা, বিসিক শিল্পনগর, মনোহরপুর, কুমিল­া ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের নওয়াব ফয়জুন্নেছা ছাত্রীনিবাস ও কলেজের ভবন, কুমিল­া সরকারি মহিলা কলেজ, দক্ষিণ চর্থা, কালিয়াজুরি ও চকবাজার এলাকায় পানি থই থই করছে। সড়কের দুই পাশের নালা উপচে পানি দোকানপাট, কার্যালয় ও বাড়িতে ঢুকে পড়েছে। তা ছাড়া, সড়কে খানাখন্দ থাকায় যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এ ছাড়াও পানি ঢুকে পড়েছে মানুষের বাসা-বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। ফলে জনজীবনে নেমে এসেছে দুর্ভোগ। পানিবন্দি হয়ে পড়ে নগরবাসী।

নগরীর রেইসকোর্স এলাকার বাসিন্দা মোবারক হোসেন জানান, কুমিল­া নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে সিটি করপোরেশন দুই যুগেও সঠিক পরিকল্পনা করে উদ্যোগ নিতে পারেনি। যার কারণে সামান্য বৃষ্টি হলেই নগরীতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এতে নগরবাসীর যন্ত্রণা বেড়ে যায়। নির্বাচন এলেই জলাবদ্ধতা মুক্ত করার কথার ফুলঝুড়ি শোনা গেলেও পরে নগদ পাতির নেশায় হারিয়ে যায়। নগরীর মুরাদপুর এলাকার কলেজ শিক্ষিকা শামীমআরা ইসলাম বলেন, নির্বাচন এসেছে প্রার্থীরা নানা প্রতিশ্রæতি দিচ্ছেন। আপাদত: ‘ স্বপ্নের মেগাসিটি চাই না, জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি চাই’।

নগরীর দক্ষিণ আশ্রাফপুর এলাকার ভ্যানচালক তমিজউদ্দিন বলেন, ‘কামাই-রোজগার কম। নিচতলায় ভাড়া থাকি। কিন্তু বৃষ্টি হলে রাতে আর ঘুমানো যায় না। ঘরে পানি ঢুকে পড়ে। যার কারণে পরিবারের সবাইকে নিয়ে চকির ওপরে বসে রাত কাটাতে হয়। এবার যে এ সমস্যার সমাধান করবেন তাকেই ভোট দিব।

প্রবীন সাংবাদিক মো. লুতফুর রহমান জানান, বর্ষার জলাবদ্ধতা আসন্ন সিটি নির্বাচনে ভোটে প্রভাব ফেলতে পারে। কারণ সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠার দুই যুগেও এ সমস্যার বাস্তবসম্মত কর্মসূচি চোখে পড়ছে না।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page