‘সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়বো কবিতার মাধ্যমে, কণ্ঠের মাধ্যমে’

কুবি প্রতিনিধি।।
‘অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার ঠাঁই নাই। যারা ১৯৭১ সালে দেশের বিরুদ্ধে ছিলো তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়বো কবিতার মাধ্যমে, কণ্ঠের মাধ্যমে।’ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যায়ের আবৃত্তি সংগঠন অনুপ্রাস কন্ঠচর্চা কেন্দ্রের প্রতীকী কবিতা পাঠ ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচীতে এসব কথা বলেন সংগঠনের উপদেষ্টা ও ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. হাবিবুর রহমান।

তিনি আরো বলেন, ‘অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিকাশে কবিতা হতে পারে হাতিয়ার৷ কবিতায় রুখে দিতে পারে সন্ত্রাস, একটা কবিতা ইতিহাস হতে পারে, একটা কবিতা আন্দোলনের হাতিয়ার হতে পারে, কবিতাই আমাদের সাম্প্রদায়িক চিন্তা বিনাশ করতে পারে।’

দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে সাম্প্রদায়িক হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে প্রতীকী কবিতা পাঠ ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যায়ের (কুবি) আবৃত্তি সংগঠন অনুপ্রাস কন্ঠচর্চা কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেন সংগঠনটি।

সংগঠনের সভাপতি সানজিদা ইসলামের সঞ্চালনায় মোমবাতি প্রজ্বলন উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী।

এসময় তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক দেশ, এখানে সাম্প্রদায়িকতার চর্চা চলবে না। বাড়িঘরে আগুন দেওয়া কিংবা মন্দির পোড়ানোর নাম প্রতিবাদ নয়, এগুলা সন্ত্রাসী কাজ৷ আমরা জানি সন্ত্রাসীদের সংখ্যা কম। তবুও কেনো আমরা তাদেরকে ভয় পায়। এই কম সংখ্যক সন্ত্রাসীদের হাতে দেশকে ছেড়ে দেওয়া যাবে না। যে যত সত্যের কাছাকাছি যাবে সে ততই অহিংস হবে।’

মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচীতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. শামিমুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট ড. মোকাদ্দেস উল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page