হোমনায় নিলখী স্বর্ণকারপাড়ায় প্রবাসীর ঘরে ডাকাতি ও অগ্নিসংযোগ

সোনিয়া আফরিন।।
কুমিল্লার হোমনায় এক প্রবাসীর ঘরে দুর্ধর্ষ ডাকাতি শেষে অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা। গত ৯জানুয়ারী শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার নিলখী ইউনিয়নের স্বর্ণকারপাড়ার সমাজ সেবক মো. আবুল কাশেমের ছেলে কাতার প্রবাসী মো. আজম খান ও হারুনুর রশিদের বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে অজ্ঞাতব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করলে হোমনা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং তদন্ত শুরু করেন। প্রবাসী হারুনুর রশিদের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, হারুনুর রশিদদের দুটি বসতঘর। একটি বিল্ডিং ও একটি টিনের দু’চালা পুরনো বসৎ ঘর।

প্রতিদিন হারুনের বাবা-মা পুরনো ঘরে থাকলেও তাদের স্ত্রীরা প্রসবজনিত কারণে শ্বশুরবাড়িতে চলে গেলে ঘটনার দিন রাতে তারা বিল্ডিং রাত্রি যাপন করেন। এসময় রাতের কোন এক প্রহরে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা টিনের ঘরের তালা ভেঙ্গে প্রবেশ করে এবং ঘরে থাকা ষ্টীলের আলমারী ভেঙ্গে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কারসহ মূল্যবান মালামাল ডাকাতি করে নিয়ে যায়। যাবার সময় আমারীতে থাকা গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্রাধিসহ কাপড়-চোপরে আগুন জ্বালিয়ে দিয়ে যায়। এতে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ঘটনাস্থলে ডাকাতদের ব্যবহৃত একটি, কোড়াল, একটি দা ও ছুড়ি পাওয়া গেছে।

প্রবাসী হারুনের বাবা আবুল কাশেমের নিকট ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রামে বা আশপাশে আমাদের কোন বিষয়ে কারো সাথে শত্রুতা নেই। তবে নিশ্চই ডাকাতরা কৌশল করতে চেয়েছিলো। তারা তালা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে আমাদের দামী জিনিসপত্র এবং কিছু টাকাসহ প্রায় ২লক্ষাধিক টাকার মালামাল আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

হারুনের মা বলেন, আমাদেরকে খুন অথবা বড় ধরনের ক্ষতি করার জন্যই হয়তো ডাকাতরা এসেছিলো। কিন্তু আমরা বিল্ডিং এর ভেতরে থাকায় তারা আমাদের জানের কোনো ক্ষতি করতে পারেনি।

আমরা প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাই। তারা যেনো সুষ্ঠ তদন্ত করে দোষিদের বিচার করেন। আমরা এখন রাত হলেই দুঃশ্চিন্তায় থাকি।

ঘটনার পর দেখতে আসা প্রতিবেশীরা জানায়, নেশাগ্রস্থ একটি সিন্ডিকেটের দারা ই এ কাজ সম্ভব হবে। দুর্বৃত্তরা হয়তো কাশেম মিয়া ও তার পরিবারের বড় কোন ক্ষতির জন্যই এসেছিলো। কিন্তু এখন তো আরো বিপদ কখন যে কি হয়ে যায়।

এলাকাবাসী বিষয়টির সুষ্ঠ তদন্তসহ সঠিক বিচারও দাবি করেন প্রশাসণের নিকট।

হোমনা থানা ইনচার্জ মো. আবুল কায়েস আকন্দ সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং তদন্ত শেষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

You cannot copy content of this page