বাঙ্গরাবাজারের পীরকাশিমপুরে ১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক ২

ম. শাহানূর আলম খাঁন।।
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরাবাজার থানাধীন পীরকাশিমপুরস্থ ভূমি অফিসের পূর্বপাশের পাকা রাস্তা এলাকা থেকে ১৬ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে বাংগরাবাজার থানা পুলিশ।

১৫ মে শনিবার রাত ৩.১৫টায় তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার অন্তর্গত বাংগরাবাজার থানার কইসর গ্রামের আ. রাজ্জাক বেপারীর ছেলে মো. সোহেল মিয়া(৪০) ও একই থানার আন্দিকুট গ্রামের আ. রাজ্জাকের ছেলে খোকন মিয়া ওরফে কনু মিয়া (৩৫)।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, উল্লেখিত থানার পূর্বাঞ্চল থেকে আসা একটি মাদকের চোরাচালান কড়ইবাড়ি স্টেশন দিয়ে পাচার হবে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাংগরাবাজার থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম ও এএসআই মেহেদী হাসান সঙ্গীয় ফোর্সসহ কড়ইবাড়ি স্টেশনে ওঁৎ পাতে। রাত ৩.১৫ টায় নম্বরবিহীন একটি সিএনজি উক্ত স্টেশন অতিক্রমকালে পুলিেশের সন্দেহ হয়।
পুলিশ চালককে থামার নির্দেশ দিলে সে না থেমে পীরকাশিমপুরের দিকে পালাতে চেষ্টা করে। পুলিশ ধাওয়া করে পীরকাশিমপুরস্থ ভূমি অফিস সংলগ্ন পূর্ব পাশের পাকারাস্তা থেকে চালকসহ ২জনকে আটক করে। জিজ্ঞেস করলে তারা সিএনজিতে থাকা গাঁজার কথা স্বীকার করে। আসনের নিচে ও সামনে থাকা ২ কেজির ৮টি প্যাকেটে একুনে ১৬ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ। সিএনজি, গাঁজা ও আটককৃত ২ জনকে বাংগরাবাজার থানায় নিয়ে আসা হয়।

এ বিষয়ে বাঙ্গরাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, ‘আজ শনিবার রাত ৩.১৫টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই মো. জাহাঙ্গীর আলম ও এএসআই মো. মেহেদী হাসান সঙ্গীয় ফোর্সসহ বাংগরাবাজার থানার কড়ইবাড়ি সিএনজি স্টেশনে অভিযান চালায়।

মাদকদ্রব্য পাচারকারীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের বহনকারী নম্বরবিহীন সিএনজিটিতে করে পালাবার চেষ্টা করে। পুলিশের সন্দেহ হলে তাদেরকে আটক করে তল্লাশি চালায়। তল্লাশিকালে উক্ত সিএনজিতে ২ কেজির ৮ টি প্যাকেটে মোট ১৬ কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। দুজনকে আটক করে গাড়ি ও গাঁজাসহ থানায় নিয়ে আসে’।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ০৩, তারিখ ১৫/০৫/২০২১। তাদরকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page