কুমিল্লায় পীরের মৃত্যুরপর আলমারি খুলে পাওয়া গেলো আড়াই কোটি টাকা

মোঃ জহিরুল হক বাবু।।
কুমিল্লায় বিশা পাগলা নামে এক পীরের আলমারি থেকে ২ কোটি ৪৫ লাখ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার (১২ জুলাই) রাতে জেলার তিতাস উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার দুপুরে বিষয়টি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বলরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর নবী।

তিনি জানান, ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের মো. আমির আলী ওরফে বিশা পাগলা নামের পীর-ফকির ছিলেন। তিনি গত শুক্রবার মৃত্যুবরণ করেন। এসময় তার দরবারে থাকা বড় বড় পাতিল নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়ায় নিকটাত্মীয়রা। পরে ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি সমাধান করবেন বলে লাশ দাফন করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে বিশা পাগলার ঘর খুলে তার ঘরে থাকা আলমারিতে মোট ২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা পাওয়া যায়। জীবিত থাকতে বিশা পাগলা একটি মসজিদ করার স্বপ্ন দেখেছিলেন। উদ্ধার করা ওই টাকা তার নিকটাত্মীয়দের হস্তান্তর করা হয়েছে। তার নিকটাত্মীয়রা যৌথ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করে সেখানে রেখেছেন টাকাগুলো।

তার কোনো স্ত্রী-সন্তান না থাকায়, দুই ভাই জামাল হোসেন এবং কামাল হোসেন এবং তার এক বোনের মেয়ের নামে ওই যৌথ অ্যাকাউন্ট করা হয়েছে। তার স্বপ্নগুলো পূরণ করতে নিকটাত্মীয়দের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন চেয়ারম্যান নূর নবী। ধারণা করা হচ্ছে তার ভক্তদের দান এবং মানতের টাকা এগুলো। এ ঘটনায় কুমিল্লাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

তিতাস থানার ওসি সুধীন চন্দ্র দাস বলেন, মৃত আমির হোসেন গাজীপুর মাজারের পাশে থাকতেন। উনার এই টাকা মূলত মাজারে ঘুরতে আসা ভক্তদের দান। তার ঘরে তিনি জীবিত অবস্থায় কাউকে ঢুকতে দেননি। তাই কেউ এ বিষয়ে জানতেন না। মারা যাওয়ার পর উনার ওয়ারিশরা এই টাকা দেখে আমাদের জানান। পরে পুলিশ পাঠিয়ে টাকাগুলো গুনে ব্র্যাক ব্যাংকে তার পাঁচ আত্মীয়ের নামে খোলা একটি নতুন অ্যাকাউন্টে রাখা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এটিএম মোর্শেদ বলেন, আমরা এর আইনি দিকগুলো দেখছি। যাচাই-বাছাই শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

You cannot copy content of this page