কুমিল্লায় পেটে লাথি মেরে গর্ভের সন্তানকে হত্যার অভিযোগ

আশরাফুল হক।।
কুমিল্লায় সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে পেটে লাথি মেরে গর্ভের সন্তানকে হত্যার অভিযোগ করেছেন সোহেল আরমান ও শিল্পী আরমান নামে এক দম্পত্তি। বিচার চাইতে মৃত নবজাতককে কোলে নিয়ে দিনভর পথেপথে ঘুরে বেড়িয়েছেন তারা। শেষ পর্যন্ত আদালতের দ্বারস্থ হন ওই দম্পত্তি।

পরে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় কুমিল্লা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ নম্বর আমলী আদালতের নির্দেশে মৃত নবজাতকের মা শিল্পী আরমান বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লা নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের পাথুরিয়াপাড়া এলাকায়।

অভিযোগে উল্লেখ করে, দম্পত্তির পাশের বাড়ির বাসিন্দা নিজ মামা আবুল কালাম ড্রাইভারের সঙ্গে বাড়ির পাশের সম্পতি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) আবুল কালামের স্ত্রী শাহানা, মেয়ে লিমা ও মেয়জামাই এপিকসহ পরিবারের লোকজন গৃহবধূ শিল্পী আরমানকে মারধর করে। এ সময় তার মামিশাশুড়ি শাহনাজ বেগম ওই গৃহবধূর পেটে লাথি মারলে প্রসব বেদনা শুরু হয়। পরে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রসববেদনা নিয়ে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হলে একটি ছেলেশিশুর জন্ম হয়। জন্মের দুই ঘণ্টার মধ্যে নবজাতকটি মারা গেলে তাকে কোলে নিয়ে ওই দম্পত্তি বিচারের দাবিতে দিনভর সমাজপতিসহ বিভিন্ন দফতরে ঘুরে বেড়ান। পরে কুমিল্লা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গিয়ে বিচার আবেদন করলে বিচারক কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ করার নির্দেশ দেন।

সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানায় মারধরের কারণে শিশুটি ভূমিষ্ট হওয়ার পর মারা যায় বলে শিল্পী আরমান বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন।

মৃত নবজাতকের সুরতহাল সংগ্রহ করা কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই মাসুদ জানান, মৃত্যুর ঘটনায় নবজাতকের মা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন। আমরা সুরতহাল সংগ্রহ করেছি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১