কুমিল্লায় প্রবাসীর বাড়িতে কেউ না থাকায় দালান-ঘর ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে এক প্রবাসীর দালান ঘর ভেঙে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। উপজেলার পশ্চিম জোড্ডা ইউনিয়নের করপাতি গ্রামের দুয়ারিয়া দক্ষিণ পাড়ার মুহুরীবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় প্রবাসী শাহ আলমের আত্মীয় নিজাম উদ্দিন বাদী হয়ে নাঙ্গলকোট থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

প্রবাসী শাহ আলম জানান, পরিবার নিয়ে তিনি দুবাই বসবাস করছেন। বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে পার্শ্ববর্তী মৃত আবুল কালামের ছেলে আবু বকর সিদ্দিক সোহাগ বহিরাগত ২০/২৫ জন লোক নিয়ে আসে। এ দুর্বৃত্তরা গত মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত তার দালান ঘরের পশ্চিম পাশের কয়েকটি নির্মাণাধীন কক্ষ ভেঙে ফেলে। এ সময় তারা প্রবাসীর বাড়ির সেফটি ট্যাংকির ভেতরে মাটি দিয়ে ভরাট করে ফেলে। এছাড়াও পানি নিষ্কাশনের পাইপ ভেঙে পুকুরে ফেলে দেয়। এতে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়। শনিবার (২৮ জানুয়ারি) রাতেও সোহাগ ৮/১০ জন লোক নিয়ে আসে বাড়ির অন্য অংশ ভাঙার জন্য। একই সময়ে পুলিশ ঐ এলাকায় গেলে সে লোকজন নিয়ে সটকে পড়ে।

রোববার (২৯ জানুয়ারি) সরেজমিন ঘটনাস্থলে গেলে ঐ গ্রামের মসজিদের মুয়াজ্জিন বয়োঃবৃদ্ধ আবু জাফর মজুমদার বলেন, সোহাগ বাইরের লোক এনে শাহ আলমের দালান ঘর ভেঙে দিয়ে ন্যাক্কারজনক কাজ করেছে। সে কারো কথা মানে না। এলাকার শান্তি-শৃংখলার স্বার্থে আমরা গ্রামবাসী সোহাগের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

গ্রামের সর্দার আইউব আলী খান বলেন, শাহ আলমের দালান ভেঙে সোহাগ গ্রামে বিশৃংখলা সৃষ্টি করেছে। সে কারো কথা শুনে না। বিগত ৪০ বছরেও আমাদের গ্রামে এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। আমরা সোহাগ সহ এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

সাবেক ইউপি সদস্য শামসুল কবির ভুঁইয়া বলেন, সোহাগ এটা ঠিক করেনি। উভয় পক্ষ আমাদের কাছে এলে আমরা সামাজিকভাবে মীমাংসার চেষ্টা করব।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

You cannot copy content of this page