চৌদ্দগ্রামে গাছ কাঁটার তুচ্ছ ঘটনায় পরিবারে ৩ জনকে কুপিয়ে জখম

মনোয়ার হোসেন, চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের গাছ কাঁটাকে কেন্দ্র করে একই পরিবারে ৩ জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে ঘর বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার (১৪ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার জগন্নাথদিঘি ইউনিয়নের সাতঘড়িয়া উত্তরপাড়া গ্রামে। আহতরা হলেন,আবুল বশার (৫৫)তার স্ত্রী রাহেনা বেগম(৪০)ও তাদের মাদ্রাসা পড়ুয়া ছেলে জোবায়ের হোসেন(১৫)।

স্থানীয় সূত্র জানা গেছে, শনিবার দুপুরে আবুল বশার তার ঘরের পাশে একটি কাঠ গাছ কাটছিল এইসময় একই এলাকার মীর আহম্মেদ গং গাছটি তার বলে দাবি করে গাছ কাটতে বাধাঁ দেয়। এই নিয়ে উভয় পক্ষের ঝগড়া শুরু হয়।এক পর্যায়ে মীর আহম্মেদ গং হামলা চালিয়ে আবুল বশার তার স্ত্রী রাহেনা বেগম ও তার ছেলে জোবায়ের হোসেনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পরে আবুল বশারে বসতঘর ভাংচুর করে নগদ টাকা পয়সা সহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নেয়।

আহতদের শোরচিৎকারে আসে পাশে লোকজন এসে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এদের মধ্যে আবুল বশারের অবস্থা আশংক্ষা জনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়।

এই ব্যাপারে মীর আহম্মেদ বলেন,আবুল বশার আমার মালিকানায় জায়গায় গাছ কাটছিল।এইনিয়ে উভয় মারামারি হয়।তবে বসত বাড়ি লুটপাটের ঘটনাটি সত্য নয়।

চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা জানান,এই বিষয়ে থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page