ভোট কারচুপির অভিযোগ করে দেবিদ্বারে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট বর্জন

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট কারচুপি, কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেয়া, প্রার্থীর গাড়ী ভাঙ্গচুরসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যানপ্রার্থী শাহিদা আক্তার ও দোয়াত কলম প্রতীকের প্রার্থী খাদিজা বিনতে রৌশন। বুধবার (২৯ মে) বিকেল ৫ টার দিকে প্রার্থীর নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই ঘোষণা দেন দুই প্রার্থী ।

কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী অংশগ্রহণ করে। কুমিল্লা ৪ আসনের সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের ছোট ভাই মো: মামুনুর রশীদ যিনি আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে নির্বাচন অংশ নেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রৌশন আলী মাস্টারের সহধর্মিণী ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী শাহিদা আক্তার ও তার মেয়ে দোয়াত কলম প্রতীকের প্রার্থী খাদিজা বিনতে রৌশন।

সংবাদ সম্মেলনে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী শাহিদা আক্তার বলেন, কুমিল্লা ৪ আসনের সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের ভাই আনারস প্রতীকের মামুনুর রশীদের লোকজন আমার এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়নি। যারা ঢুকেছে, সকাল ১০ টার দিকে তাদেরকেও মারধর করে বের করে দেয়া হয়েছে। এই ছাড়া আমাদের নেতাকর্মীদেরকেও মারধর করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটারদের কেন্দ্রে না যেতে হুমকি ধামকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে তারা। তারা বহিরাগতদের দিয়ে জাল ভোট দিয়েছে। এমনকি আমার মেয়ের গাড়ী ভাঙ্গচুর করেছে তারা।

তিনি আরও বলেন, পুলিশ-প্রশাসন কে অভিযোগ করলে পুলিশ প্রশাসন সাথে সাথে কেন্দ্রে গিয়েছে। যতক্ষন প্রশাসন কেন্দ্রে উপস্থিত ছিল, ওই সময়ে কেন্দ্র ঠিক ছিল। প্রশাসন সরে গেলে তারা আবার বহিরাগতদের দিয়ে জাল ভোট দিয়েছে। এই বিষয়ে কমিশনে অভিযোগ করেছি। আমরা ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট চাই।

প্রসঙ্গত, কুমিল্লার ৪ টি উপজেলায় বুধবার সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেবিদ্বার উপজেলায় ৯ জন প্রার্থীর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

You cannot copy content of this page