মালয়েশিয়ায় খালি কন্টেইনারে আটকে যাওয়া কিশোরের বাড়ি কুমিল্লায়

নেকবর হোসেন।।
প্রায় দুই মাস ধরে কুমিল্লার বাকপ্রতিবন্ধী কিশোর মো. রাতুল ইসলাম সাঈদের (১৪) সন্ধান মিলেছে। চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে মালয়েশিয়ায় যাওয়া একটি কনটেইনার থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। তার বাড়ি কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নের সাতপুকুরিয়া গ্রামে। বাবার নাম মো. ফারুক।

শনিবার (২১ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাতুলের চাচা মো. আজগর আলী ও ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান হাওলাদার।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ১২ জানুয়ারি ছেড়ে যাওয়া ‘এমভি ইন্টেগ্রা’ জাহাজের একটি খালি কনটেইনারে আটকা পড়ে রাতুল। মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) মালয়েশিয়ার কেলাং বন্দরে জাহাজের একটি খালি কনটেইনারের ভেতর থেকে শব্দ শুনতে পান নাবিকরা। এরপরই কেলাং বন্দরকে জানানো হয়। পরদিন বুধবার (১৭ জানুয়ারি) বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় জাহাজটির কনটেইনার খুলে প্রতিবন্ধী এই কিশোরকে উদ্ধার করা হয়।

চাচা আজগর আলী বলেন, ‘সে জন্ম থেকেই কথা বলতে পারেন না। বাকপ্রতিবন্ধী হওয়াতে আমরা অনেক ডাক্তার দেখিয়েছি। পরে সামান্য কথা বলতে পারতো। দুই মাস সাত দিন আগে ভাতিজা নিখোঁজ হয়। আর্থিক অসচ্ছল হওয়াতে আমরা থানায় জিডিও করতে যেতে পারিনি। আর মাইকিং বা প্রচারও করতে পারিনি। গতকাল ফেসবুকে তাকে দেখে চিনতে পেরেছি। আমরা আমার ভাতিজা ফেরত চাই। সরকারের কাছে অনুরোধ ছেলেটাকে যেন ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেন।’

ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান হাওলাদার বলেন, ‘ছেলেটার ছবি দেখে শনাক্ত করেছি। আমার এলাকার ছেলে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কথা বলে দেখবো কীভাবে তাকে ফেরত আনা যায়। তাদের পরিবার খুবই দরিদ্র।’

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮  

You cannot copy content of this page