আমিরাতে বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটির অভিষেক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন

আলমগীর হোসেন।।
প্রবাসে সকল বৈষম্য দূর করে সাংবাদিকদের একটি শক্তিশালী টিম গঠন করে ঐক্যববদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। সাংবাদিকরা পেশাদারিত্ব বজায় রেখে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করবেন মন্তব্য করে সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত মো. আবু জাফর এ কথা বলেন।

গেল ২৭ মে দুবাইয়ের রয়েল কনকর্ড হোটেলে বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি ইউএই’র অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি ইউএই’র সভাপতি ও এসএ টিভির আমিরাত প্রতিনিধি সিরাজুল হকের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম সাইফুল এবং সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুর রহমান সোহেলে সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন সম্মানিত অতিথি গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ও ডিবিসি নিউজের চেয়ারম্যান ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন দুবাই বাংলাদেশ কনসুলেটের কনসাল জেনারেল বিএম জামাল হোসেন, বাংলাদেশ হাইকমিশন ভারতের প্রেস মিনিস্টার শাবান মাহমুদ, সাংবাদিক নেতা ও নিউজ টোয়েন্টিফোর টেলিভিশনের নির্বাহী সম্পাদক রাহুল রাহা, সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ইয়াকুব সুনিক, উপদেষ্টা মাহবুব হাসান হৃদয়, ব্যবসায়ী ইব্রাহিম ওসমান আফলাতুন সিআইপি, ভাইয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান মারুফ সাত্তার, নেফলেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এ কে আজাদসহ আমিরাতে বসবাসরত বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, শিল্পপতি ও বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ।

পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। পরে বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি ইউএই’র নতুন কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করান সম্মানিত অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। শপথ শেষে নবনিযুক্ত কমিটির সাংবাদিকদের উত্তরীয় পরিয়ে অভিনন্দন জানান শাবান মাহমুদ ও নিউজ২৪ টেলিভিশনের নির্বাহী সম্পাদক রাহুল রাহা। পরে গুণীজন সম্মাননা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে জমে ওঠে দুবাইয়ের রয়েল কনকর্ড হোটেল।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি ইউএই’র ভুয়সী প্রশংসা করে বক্তারা বলেন, সাংবাদিকদের ন্যায়-নীতি এবং জবাবদিহিতা থাকতে হবে। স্বাধীন সাংবাদিকতা ছাড়া গণতন্ত্র যেমন প্রতিষ্ঠা হবে না। রাষ্ট্রে সাংবাদিকতা যত নিরাপদ ও স্বাধীন হবে ততোই দেশ এগিয়ে যাবে, সমৃদ্ধ হবে।

সঠিক তথ্য ছাড়া সংবাদ প্রচার করা যাবে না। প্রবাসী সাংবাদিকদের দায়িত্বশীল হয়ে কাজ করতে হবে। মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয় এমন সংবাদও প্রচার করা যাবে না। কেবল ইতিবাচক সংবাদ প্রচারই দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির বয়ে আনবে। বক্তারা আরো বলেন, কে কোন মতাদর্শে বিশ্বাসী, সেটা বিবেচ্য বিষয় নয়, সবাই এক সঙ্গে কাজ করলে পেশার মান বাড়বে, সমাজ এবং দেশের সমৃদ্ধ হবে।

পরে নিউজ টোয়েন্টিফোর টেলিভিশনের নির্বাহী সম্পাদক রাহুল রাহা বলেন, আমাদের স্বাধীন সার্বভৌম ও রাষ্ট্রের স্বাধীন পতাকা বিশ্বের কাছে ইতিবাচকভাবে উপস্থাপন করতে সাংবাদিকদের ভূমিকা পালন করতে হবে। আপনারা মনে রাখবেন সাংবাদিকতা মহৎ পেশার পাশাপাশি একটি সম্ভাবনাময় পেশা। এ উজ্জল সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হলে আপনাদেরকে সবার আগে আত্মমর্যাদাশীল হতে হবে, পেশাদার হতে হবে, নিরেপক্ষ হতে হবে। নিরেপক্ষতার নামে নির্লিপ্ত হলে চলবে না। আপনাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে। অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করতে হবে এবং সবার সাথে পেশাধারীত্বের মাধ্যমে সুসম্পর্ক রক্ষা করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি ইউএই’র কতৃক সম্পাদিত ম্যাগাজিন “কিঞ্জল” প্রকাশনার ভূয়সী প্রশংসা করে কনসাল জেনারেল বিএম জামাল হোসেন বলেন, বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি ইউএই অসাধারণ একটি প্রকাশনা উপহার দিয়েছে। এটা আমিরাতে বিস্ময় হয়ে থাকবে। আমি বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি পরিবারের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি। শেষে সংগীত শিল্পী তামান্না হকের সুরের মূর্ছনায় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

     আরো দেখুন:

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

You cannot copy content of this page